সাপ (Snake) কিভাবে শুনতে পায়, কিভাবে চলাফেরা করে, কি ধরনের প্রাণী, বিষধর ও বিষহীন সাপ চেনার উপায় কী?

snake hearing

সাপ যেভাবে শুনতে পায়?
সাপের কোন শ্রবণ ইন্দ্রিয় নেই। সাপ শুনতে পায় ত্বকের সাহায্যে। মাটিতে শব্দ বা কম্পন সৃষ্টি হলে সাপের ত্বক তা স্নায়ুর সাহায্যে অনুভব করে। আর এভাবেই সাপ শোনার কাজটি সম্পাদন করে।
সাপ কিভাবে চলাফেরা করে?
সাপ বুকে ভর দিয়ে চলাচল করে। সাপের বুকের দিকে পাতলা প্লেটের মত অঙ্গ পরপর সাজানো থাকে। প্রতিটি প্লেটের সাথে একজোড়া রিব লাগান থাকে যেটা অনেকটা পায়ের পাতার মত কাজ করে। পেশী সঞ্চালনের সাহায্যে এই প্লেট ও রিবের সাহায্যে সাপ নড়াচড়া ও চলাচল করে।
সাপ কি ধরনের প্রাণী?
সাপ উপাঙ্গবিহীন, সরু লম্বা দেহ এবং আঁকা-বাঁকা চলনসম্পন্ন সরীসৃপ। এদের কর্ণপটস বা টিমপেনাম ও চোখের পাতা নেই। প্রকৃতপক্ষে সাপ শুনতে পায় না। দ্বিখন্ডিত লিকলিকে জিহ্বা ঘ্রাণ ইন্দ্রিয়ের কাজ করে। বিষধর সাপে সাধারণত দাঁতের উপরের চোয়ালে দু’টি বিষদাঁত থাকে। দাঁতগুলো ফাঁপা বা নালী বিশিষ্ট এবং একজোড়া বিষথলির সাথে যুক্ত। সাপের বিষ ঔষধ তৈরিতে ব্যবহৃত হয়। কয়েকটি বিষধর সাপ হল- রাজ গোখরা, কাল গোখরা, শঙ্খিনী, চন্দ্রবোড়া ও পদ্মগোখরা।
বিষধর ও বিষহীন সাপ চেনার উপায়?
বিষধর সাপের দু’টো বড় বিষদাঁত থাকে যা বিষহীন সাপের থাকে না। বিষহীন সাপের সেখানে ছোট ছোট অনেকগুলো দাঁত থাকে। সাপে কাটলে যদি দুটি বড় দাঁত দেখা যায় তবে বুঝতে হবে বিষধর সাপে কেটেছে, আর যদি অনেকগুলো দাত থাকে তবে বুঝতে হবে বিষহীন সাপে কেটেছে।