প্রোগ্রামের ভাষা

progrming language

প্রোগ্রামের ভাষা
কম্পিউটার দিয়ে সহজে কোন সমস্যা সমাধানের জন্য কম্পিউটারকে তার নিজস্ব বোধগম্য ভাষায় নির্দেশ প্রদান করতে হয়। কম্পিউটারের নিজস্ব ও বোধগম্য ভাষায় নির্দেশ প্রদানের জন্য নির্দিষ্ট নিয়ম অনুযায়ী শব্দ, বর্ণ, সংকেত ইত্যাদির সুনির্দিষ্ট বিন্যাস হচ্ছে প্রোগ্রাম। প্রোগামে ব্যবহৃত বর্ণ, শব্দ, সংকেত ইত্যাদি নির্দিষ্ট গঠনে তৈরি হয় প্রোগ্রামের ভাষা।

প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজের স্তর
১৯৪৫ সাল থেকে শুরু করে এ পর্যন্ত কয়েকশত প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ বা ভাষা আবিষ্কৃত হয়েছে। এ সকল ভাষাকে বৈশিষ্ট অনুযায়ী পাঁচটি স্তর বা প্রজন্মে ভাগ করা যায়। যথা :
প্রথম প্রজন্ম বা ফার্ষ্ট জেনারেশন ভাষা (১৯৪৫) : মেশিন ভাষা।
দ্বিতীয় প্রজন্ম বা সেকেন্ড জেনারেশন ভাষা (১৯৫০) : অ্যাসেম্বলী ভাষা।
তৃতিয় প্রজন্ম বা থার্ড জেনারেশন ভাষা(১৯৬০) : উচ্চতর বা হাই লেভেল ভাষা।
চতুর্থ প্রজন্ম বা ফোর্থ জেনারেশন ভাষা(১৯৭০) : অতি উচ্চতর বা ভেরি হাই লেভেল ভাষা।
পঞ্চম প্রজন্ম বা ফিফথ জেনারেশন ভাষা(১৯৮০) : স্বাভাবিক বা ন্যাচারাল ভাষা।